Home / চলতি খবর / পুত্রবধুর সম্ভ্রম রক্ষায় প্রাণ গেলো শাশুড়ীর : ১২দিনেও কোন গ্রেফতার নেই

পুত্রবধুর সম্ভ্রম রক্ষায় প্রাণ গেলো শাশুড়ীর : ১২দিনেও কোন গ্রেফতার নেই

রোকনুজ্জামান সবুজ জামালপুর: পুত্রবধুর সম্ভ্রম রক্ষা করতে গিয়ে ধর্ষণ চেষ্টাকারীর হামলায় জীবন দিতে হয়েছে শাশুড়িকে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার পোড়াবাড়ি গ্রামে। প্রকাশ্য দিবালোকে ধর্ষন চেষ্টাকারীর হামলায় নিহতের ঘটনার ১২ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়নি কোনো আসামী।
মাদারগঞ্জ উপজেলার আদারভিটা ইউনিয়নের পোড়াবাড়ি গ্রামের গোলাম মোস্তফা জানান, তার পুত্রবধুকে দীর্ঘদিন থেকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল প্রতিবেশি জহুরুল ইসলাম। প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় তার পুত্রবধুকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের হুমকী দেয় জহুরুল। গত ২২ সেপ্টেম্বর রোববার বিকালে বাড়ির পাশে মাঠে ছাগল চড়াচ্ছিলেন ওই গৃহবধু। খোলা মাঠে একা পেয়ে জহুরুল ইসলাম ওই গৃহবধুকে জড়িয়ে ধরে সম্ভ্রমহানীর চেষ্টা করে। গৃহবধুর চিৎকারে তার শাশুড়ি সরমলা বেগম (৫২) এগিয়ে এলে জহুরুল ও তার সহযোগীরা গৃহবধু এবং তার শাশুড়ির উপর হামলা চালায়। হামলায় গুরুত্বর আহত সরমলা বেগমকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও ঘটনার দিন রাত সাড়ে ১১টায় তিনি মারা যান। পরদিন ২৩ সেপ্টেম্বর সদর থানা পুলিশ নিহতের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেন। ওই ঘটনায় নিহতের স্বামী গোলাম মোস্তফা বাদী হয়ে ধর্ষণ চেষ্টাকারী জহুরুল ইসলামসহ ৪ জনকে আসামী করে মাদারগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন গত ২৩ সেপ্টেম্বর। গত ২৫ সেপ্টেম্বর মামলাটি এফআইআর ভুক্ত করলেও এখন পর্যন্ত কোন আসামীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
খোকন মিয়ার স্ত্রী নির্যাতিত গৃহবধু চায়না আক্তার (২২) জানান, বেশ কিছুদিন ধরে প্রতিবেশি জহুরুল তাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। ঘটনার দিন মাঠে একা পেয়ে তাকে জড়িয়ে ধরে জোরপূর্বক সম্ভ্রমহানীর চেষ্টা করে। এ সময় চিৎকার শুনে তার শাশুড়ি তাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে জহুরুল ও তার সহযোগীরা দুজনের উপরই হামলা চালায়।
পোড়াবাড়ি গ্রামের সাগর আলী জানান, জহুরুলের বিরুদ্ধে নারীদের উত্যক্ত করার অভিযোগ আগেও ছিলো। পুত্রবধুর সম্ভ্রম বাঁচাতে গেলে সরমলা বেগমকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। তিনি এ ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। এছাড়াও চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলার আসামীদের দ্রæত গ্রেপ্তার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন পোড়াবাড়ি গ্রামবাসী।
জামালপুরের পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন জানান, পারিবারিক বিরোধে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। পুলিশ সকল আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে। খুব দ্রæত সময়ে আসামীরা গ্রেপ্তার হবে।

 

About gssnews2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*