Home / চলতি খবর / গাজীপুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ডেপুটি ডাইরেক্টর সেজে প্রতারণা : গ্রেফতার ১ 

গাজীপুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ডেপুটি ডাইরেক্টর সেজে প্রতারণা : গ্রেফতার ১ 

আব্দুস সবুর খান, টঙ্গী : গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের শিমুলতলী এলাকা থেকে এক প্রতারককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা। গ্রেফতারকৃতের নাম ইল্লাম শাহরিয়ার। গ্রেফতারকৃত ইল্লাম শাহারিয়ার ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট বারিধারার ডিওএইচএস এলাকার মোঃ সাদিক হাসানের ছেলে বলে জানা গেছে। সে গাজীপুর সদর থানার মৌবাগ চত্বর এলাকার ওবায়দুল হকের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। সে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ডেপুটি ডাইরেক্টর পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছিল। সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্পে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে সিটি কর্পোরেশনের শিমুলতলী এলাকায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ডেপুটি ডাইরেক্টর পরিচয়দানকারী প্রতারক ইল্লাম শাহরিয়ার অবস্থান করছে। ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লে: আব্দুল্লাহ আল-মামুনের নেতৃত্বে এবং গাজীপুরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল ফেরদৌসের উপস্থিতিতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।
এ সময় তার কাছ থেকে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের ডেপুটি সেক্রেটারি নামে একটি আইডি কার্ড, এডিশনাল ডাইরেক্টরের নামে একটি আইডি কার্ড, ডেপুটি ডাইরেক্টরের নামে কাগজের প্রিন্ট করা দুই পাতা কার্ড, ডেপুটি সেক্রেটারির এক পাতা কার্ড, ডেপুটি ডাইরেক্টরের নামে পাঁচশটি ভিজিটিং কার্ড, সত্যায়িত প্রজ্ঞাপন ২ পাতা, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের অফিস আদেশ ৪ পাতা, বিভিন্ন প্রকার ব্যক্তির নামে (এসএসএফ পরিচালক, সচিব, ব্রিটিশ হাইকমিশনার, বিভিন্ন ব্যাংকসহ বিভিন্ন অফিসের নামে)-১৫ টি সিল, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মনোগ্রামের ট্রাকসুট (শার্ট জলপাই রং-১ টি, সাদাকালো-১ টি), প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মনোগ্রাম ছোট/বড়-২০টি, বাংলাদেশের মানচিত্র মনোগ্রাম-৫ টি, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মনোগ্রাম যুক্ত আইডি কার্ডের ফিতা-২টি, এসএসএফ এর মনোগ্রামসহ ফিতা-৩টি, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের চেক বই-১টি, সাউথইষ্ট ব্যাংকের চেক বই-১টি, সোনালী ব্যাংকের চেক বই-১টি, ট্রাস্ট ব্যাংকের চেক বই-১ টি, নগদ ৬লক্ষ টাকা, ২টি মোবাইল ফোন, টয়োটা আলফার্ড মাইক্রোবাস-১টি, পিএমও লিখা কালো ক্যাপ-১টি, জ্যাকেট বাদামী রং-১টি, এসএসএফ এর জলপাই রং এর পোষাক-১টি, সিগন্যাল লাইট-১টি, ওয়াকিটকি সেট-২টি, লাইটার পিস্তল-১টি, খেলনা পিস্তল-১টি, এসএসএফ এর আইডি কার্ড-১টি, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আইডি কার্ড-১টি, ঢাকা মেট্রো-র-১০১২ লিখা ১টি গাড়ীর নেইম প্লেট এবং উল্লেখিত গাড়ীর সমস্ত কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়েছে।
র‌্যাব জানায়, ইল্লাম শাহরিয়ার পেশায় একজন আইটি বিশেষজ্ঞ। ওই পেশার আড়ালে তিনি সর্বসাধারণের কাছে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আইটি সেকশনের ডেপুটি ডাইরেক্টর পরিচয়দানের পাশাপাশি তার ব্যবহৃত গাড়ীতে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের বিভিন্ন স্টিকার, মনোগ্রাম, ওয়াকি-টকি সেটসহ এসএসএফ এর ব্যবহৃত পোশাক ও ক্যাপ ব্যবহার করে আসছিলেন।
র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে সে দীর্ঘদিন যাবৎ নিজেকে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আইটি সেকশনের ডেপুটি ডাইরেক্টর হিসেবে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি কর্মকতা/কর্মচারীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের মানুষের কাছ থেকে চাকরি, পদোন্নতি, বদলী, বিদেশে প্রেরণের কথা বলে প্রতারণার মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলে স্বীকার করেন। সরকারি কাজে বাধা প্রদানের অপরাধে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল ফেরদৌস ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে তাকে গাজীপুর কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

About gssnews2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*