Home / চট্টগ্রামের খবর / চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ: ভবন মালিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ: ভবন মালিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

স্বপন কান্তি দাস : ৩৪নং ওয়ার্ড ব্রিকফিল্ড পাথরঘাটা, কোতোয়ালী, চট্টগ্রামে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত সাতজন, আহত চিকিৎসাধীন ১০জন সংঘঠিত ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। ভবনের মালিক অমল বড়ুয়া ও টিটু বড়ুয়াকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। সোমবার দুপুরে (১৮ নভেম্বর) অবহেলাজনিত নরহত্যা ও ক্ষতিসাধনের অভিযোগে নিহত রিকশাচালক মাহমুদুল হকের স্ত্রী শাহীনা আক্তার বাদি হয়ে মামলাটি করেন। এতে অজ্ঞাত আরও অনেককে আসামি করা হয়েছে।
কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, ‘বিস্ফোরণে নিহত রিকশাচালক মাহমুদুল হকের স্ত্রী শাহীনা আক্তার বাদি হয়ে দুইজনের নাম উল্লেখ করে মামলাটি করেন। এছাড়া আরও অনেককে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।’ তবে তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে— বড়ুয়া ভবনের মালিক দুই সহোদর অমল বড়ুয়া ও টিটু বড়ুয়ার নাম উল্লেখ করা হয়েছে এজাহারে।
রোববার (১৭ নভেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী থানার পাথরঘাটার ব্রিকফিল্ড রোডে বড়ুয়া ভবনের এক ভয়াবহ বিস্ফোরণে নারী শিশুসহ ৭জন নিহত হন। এ ঘটনায় দগ্ধসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন স্কুল শিক্ষক অ্যানি বড়ুয়া (৪০), গৃহবধূ জুলেখা খানম ফারজানা (৩৩), তার দ্বিতীয় শ্রেণী পড়ুয়া ৭ বছর বয়সী শিশু আতিকুর রহমান শুভ, রিকশাচালক আব্দুল শুক্কুর (৫০), ভ্যানচালক মো. সেলিম (৪০), পাশের ভবনের রঙ মিস্ত্রি নুরুল ইসলাম (৩১), চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়ায় তেইল্যাকাটা সেনেরচরে মাহমুদুল হক (৩০)।
বিস্ফোরণে ওই ভবনের নিচতলার দেয়াল ও সীমানা প্রাচীর ধসে রাস্তার উপর পড়লে পথচারীর, রিকশাচালক নিহত ও আহত হয়েছেন। বিস্ফোরণের ভয়াবহতা এতোই শক্তিশালী ও ভয়াবহ ছিল যে বড়ুয়া ভবনে বিস্ফোরণের কারণে রাস্তার অপর পাশে অবস্থিত জসীম বিল্ডিংয়ের নিচতলার দোকানে গিয়ে পড়ে নিহত ও আহতদের অনেকে। এমনকি সেখানকার কলাপসিবল গেটসহ ভেঙে ওই ভবনের বেশ কিছু দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিস্ফোরণের এই ঘটনায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন, সিএমপি, কর্ণফুলী গ্যাস বিতরণ কোম্পানি লিমিটেডে (কেজিডিসিএল) পক্ষ থেকে মোট চারটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
১৮ নভেম্বর সকালে নগর পুলিশের পক্ষ থেকে গঠিত আরেকটি তদন্ত কমিটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বিভিন্ন তথ্য-উপাও সংগ্রহ করেছে। এসময় ৩৪ নম্বর পাথরঘাটা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইসমাইল বালি, কোতোয়ালী থানার ওসি মো. মহসীন সহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।
নগর পুলিশের দক্ষিণ জোনের উপ-কমিশনার (ডিসি) মেহেদী হাসান, নগর বিশেষ শাখার অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মঞ্জুর মোরশেদ ও কোতোয়ালী জোনের সহকারী কমিশনার নোবেল চাকমা, কেজিডিসিএল এর মহাব্যবস্থাপক (ইঞ্জিনিয়ারিং ও সার্ভিসেস) প্রকৌশলী সারোয়ার হোসেন, উপ-মহাব্যবস্থাপক (কোয়ালিটি কন্ট্রোল) প্রকৌশলী আহসান হাবিব, উপ-মহাব্যবস্থাপক (বিক্রয়) প্রকৌশলী আবু জাহের উপ-মহাব্যবস্থাপক (প্লানিং) প্রকৌশলী শফিউল আলম সহ সংশ্লিষ্টরা এ ঘটনা তদন্ত করছেন।

About gssnews2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*