Home / চলতি খবর / শুক্রবার ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু

শুক্রবার ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু

আব্দুস সবুর খান, টঙ্গী : তাবলীগ জামাতের সা’দপন্থীদের বিশ^ ইজতেমা দ্বিতীয় পর্ব আগামীকাল শুক্রবার থেকে শুরু হবে। সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে বিশ^ ইজতেমা দ্বিতীয় পর্বের সমস্ত আয়োজন থাকছে প্রথম পর্বের মতো। ইতিমধ্যে গতকাল বুধবার থেকে সা’দপন্থী অনুসারী মুসল্লীরা আসতে শুরু করেছে। তবে প্রথম পর্বের মতো মুসল্লীর সমাগম দেখা যাচ্ছে না। স্থানীয় প্রশাসন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেমন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ইতিমধ্যে ইজতেমা ময়দানের ভেতর এবং বাহিরের আয়োজন সম্পন্ন করেছেন। রবিবার আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে প্রথম পর্ব শেষ হওয়ার পর ২৪ ঘন্টার মধ্যে ইজতেমা মাঠ খালি করে দেয়া হয়। পরবর্তী চারদিন ইজতেমা ময়দানের আবর্জনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়। দ্বিতীয় পর্বের আয়োজনে নেতৃত্বে রয়েছেন সা’দপন্থী মুরুব্বী ওয়াসেকুল ইসলাম ও শাহাবউদ্দিন নাসিম গং। ৩দিনের এই বিশ^ ইজতেমায় আমল, আখলাক, দুনিয়া ও আখেরাতে সুখ-শান্তির লক্ষ্যে দিনরাত বয়ান চলবে প্রথম পর্বের মতোই। সা’দপন্থীরা বলছেন, দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমাই আসল ইজতেমা। এদিকে দ্বিতীয় পর্বের বিশ^ ইজতেমা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ইজতেমা ময়দানে মুরুব্বীদের সঙ্গে স্থানীয় এমপি, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল সর্বশেষ বৈঠক করেন। বৈঠকে মন্ত্রী রাসেল বলেন, প্রথম পর্বের ন্যায় সমস্ত সুযোগ সুবিধা দ্বিতীয় পর্বেও থাকবে। মুসল্লীরা যাতে ইজতেমা মাঠে আসা-যাওয়ায় কোন ধরনের সমস্যায় না পড়েন সে ব্যাপারে সব সংস্থাকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ইজতেমায় মুসল্লীদের আসা-যাওয়ার জন্য সড়ক, নৌ ও ট্রেন পথে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে সরকার।
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম জানান, প্রথম পর্ব অনুষ্ঠানের পর মাঠের ভেতরে যে সব ময়লা আবর্জ্যনা জমা হয়েছিল তা গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন সাড়ে ৪০০ পরিচ্ছন্ন কর্মী এবং ২৯টি বর্জ্য পরিবহণের মাধ্যমে অপসারণ করা হয়। মাঠে জমে থাকা ময়লা পানি নিষ্কাশন করে ৫০০ ট্রাক বালু ফেলানো হয়েছে। এখন ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব অনুষ্ঠানে টঙ্গীর বিশ^ ইজতেমা ময়দান পুরোপুরি প্রস্তুত। দ্বিতীয় পর্বের বিশ^ ইজতেমায় থাকছে ৫ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রথম পর্বের ন্যায় দ্বিতীয় পর্বেও র‌্যাব, পুলিশ ও সাদা পোশাকে থাকছে প্রায় ৮ হাজার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য। পুরো ইজতেমা ময়দান জুড়ে সিসিটিভি, ওয়াচ টাওয়ার ও মেটাল ডিট্রেক্টরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে। মুসল্লীদের পানির সুবিধার্থে প্রতিদিন ৩ কোটি গ্যালন পানি উত্তোলনের সুবিধা থাকছে ইজতেমা ময়দানে। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আনোয়ার হোসেন জানান, প্রথম পর্বের ন্যায় দ্বিতীয় পর্বেও থাকছে নিরাপত্তার সব ব্যবস্থা। গাজীপুর জেলা প্রশাসক এস.এম তরিকুল ইসলাম জানান, প্রথম পর্বের ইজতেমা শেষে ২৪ ঘন্টার মধ্যে ইজতেমা ময়দান স্থানীয় প্রশাসন বুঝে নিয়ে দ্বিতীয় পর্বের মুরুব্বীদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। উল্লেখ করা যেতে পারে, গত ৪ বছর ধরে ৬৪টি জেলায় ৩২ জেলা করে দু’পর্বে তাবলীগ জামাতের ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছিল। গত বছর ইজতেমার একক নিয়ন্ত্রণে নিতে ইজতেমা ময়দানে দু’পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে কয়েকজন মুসল্লী হতাহত হন। এরপর থেকে যোবায়েরপন্থী এবং সা’দপন্থী নামে তাবলীগ জামাতের ইজতেমায় দুটি গ্রুপের সৃষ্টি হয়। ১৯৬৭ সাল থেকে টঙ্গীর এই ময়দানে বিশ^ ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

About gssnews2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*