Home / আন্তর্জাতিক /  ভারতের  আসামে মঙ্গলবার  থেকে ৩১ মার্চ পর্য়ন্ত লকআউট 

 ভারতের  আসামে মঙ্গলবার  থেকে ৩১ মার্চ পর্য়ন্ত লকআউট 

তাহের আহমেদ মজুমদার,(আসাম); দেশে য়েভাবে  হু হু করে নভেল করোনা এর সংক্রমণ বাড়ছে। সেটা থেকে রাজ্যের মানুষ কে বাঁচিয়ে রাখতে মঙ্গলবার  সন্ধ্যা ৬ টা  থেকে ৩১ রাত ১২  মার্চ পর্য়ন্ত “লকআউট” ঘোষণা করল ভারতের  অসম সরকার। নভেল করোনা ভাইরাসের  সংক্রমণ রুখতে  কলকাতা সহ দেশের ৭৫ টি জেলায় লকডাউন এর প্রস্তাব  দিয়েছিল কেন্দ্র। সেটাকে মাথায় রেখে উত্তরপূর্ব ভারতের অসম  সরকার মঙ্গলবার থেকে ৩১ মার্চ পর্য়ন্ত  গোটা রাজ্যে ” লকআউট” এর ঘোষণা  করল। সোমবার বিকাল ৫ টায় অসমের রাজধানী দিসপুরে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে অসমের প্রভাবশালী স্বাস্থ্য ও  বিত্ত মন্ত্রী  হিমন্ত বিশ্ব শর্মা  ওউ লক আউটের ঘোষণা করেছেন। এদিন মন্ত্রী  হিমন্ত বিশ্ব শর্মা  জানান,মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে গোটা রাজ্যে ওই লকআউট  কার্য়কর হবে তাহা ৩১ মার্চ রাত ১২ পর্যন্ত চলবে। এদিন মন্ত্রী  শর্মা আরও জানান, এপর্যন্ত অসমের কোন স্হানে করোনায় আক্রান্ত কোনও ঘটনা ধরা পড়েনী। তবে অসমের ডিব্রগড়,তেজপুর,শিলচর সহ বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ গুলিতে নভেল করোনা এর সংক্রমণ  কে সামনে রেখে ব্যাপক সতর্কতার সহিত কাজ হচ্ছে। রাজ্যের প্রত্যেকটি বিমানবন্দর , রেলস্টেশন গুলিতে বেশ তৎপরতার সহিত  করোনা ভাইরাস এর সন্দেহ হলে মানুষকে পরীক্ষা করা হচ্ছে। এদিন মন্ত্রী  হিমন্তবিশ্ব শর্মা আরও জানিয়েছেন রাজ্যের লকআউট এর সময় নিত্যপ্রয়োজনীন সেবা গুলি ছাড়াও গোলমালের দোকান ও ঔষধ এর দোকান ও প্রেট্রোল পাম্প  গুলি খুলা থাকবে। এছাড়াও সব ধরনের দোকান পাট ব্যাবসায়িক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। লকআউট কে অমান্য করে কেউ বাড়ি থেকে ভের হতে পারবে না। আইন অমান্য করলে কমপক্ষে ছয়মাসের জেল ও এক হাজার টাকা জরিমানা হবে। তবে ওই লকআউটের মধ্যে রাজ্যের কোষাগার ও ব্যাঙ্ক গুলি পড়বে না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য  মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। এদিকে অসমের  রাজ্য সরকার করোনা ভাইরাস থেকে রাজ্যের সাধারণ জনতা কে রক্ষা করতে বিভিন্ন প্রদক্ষেপ নিচ্ছে। অন্যদিকে রাজ্যের  বিভিন্ন স্হানে করোনা ভাইরাস নিয়ে একের পর এক গুজব  মুহূর্তের মধ্যে  ছড়েয়ে। এতে গোটা রাজ্যের মানুষ  একটা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন রাজ্যসরকারের পক্ষে  জানিয়ে দেওয়া হয়েছে  করোনা নিয়ে এভাবে গুজব না ছড়াতে। এতে আতঙ্কের মাএা মানুষের মধ্যে আরও বৃদ্ধি পাবে। বার বার সরকার এর পক্ষ থেকে রাজ্যকে করোনার প্রকোপ থেকে রক্ষা করতে রাজ্যের জনতার সহয়োগিতা চাওয়া হচ্ছে। সোমবার পর্য়ন্ত অসমে কোনও করোনা আক্রান্ত রোগীর সন্দান পাওয়া না গেলেও গোটা রাজ্যে একটা আতঙ্কের পরিবেশ বিরাজ করছে।সোমবার সকাল থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জনবহুল এলাকায়  স্হানীয় প্রশাসন লকআউট ঘোষণা করেছে ইতিমধ্যে। বিভিন্ন জেলায় করোনা মোকাবিলায় টাস্ক ফোর্স গঠন করেছে জেলা প্রশাসন গুলি।

 

 

About gssnews2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*