Home / চলতি খবর / দাখিলে শতভাগ পাশসহ আখাউড়া উপজেলায় শীর্ষে মাদরাসাতু ছালেহা খাতুন দাখিল মাদরাসা

দাখিলে শতভাগ পাশসহ আখাউড়া উপজেলায় শীর্ষে মাদরাসাতু ছালেহা খাতুন দাখিল মাদরাসা

ইসমাঈল হোসেন (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের দরুইন গ্রামে অবস্থিত মাদরাসাতু ছালেহা খাতুন দাখিল মাদরাসা বিগত বছরের ন্যায় এইবছরও দাখিল পরীক্ষায় শতভাগ উর্ত্তীণ হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি থেকে।বিএসবি ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপ কর্তৃক পরিচালিত এই মাদরাসা থেকে ২০২০ সালের দাখিল পরীক্ষায় মোট ২১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়।জানা যায়,এ বছর এ মাদরাসাটি থেকে ২১ জনের মধ্যে সবাই পাশ করে।পাশকৃতদের মধ্যে ১৮ জন এ গ্রেড , ২ জন এ মাইনাস গ্রেড এবং ১ জন বি গ্রেড পেয়েছে।উল্লেখ্য যে, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার মধ্যে চলতি বছরে সবোর্চ্চ বৃত্তি প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান হিসেবে গণ্য হয়েছে মাদরাসাতু ছালেহা খাতুন দাখিল মাদরাসা।এ মাদরাসা থেকে ২০১৯ সালে পঞ্চম শ্রেণিতে বৃত্তি প্রাপ্ত ১৫ জন, অষ্টম শ্রেণিতে বৃত্তি প্রাপ্ত ৮ জনসহ সর্বমোট ২৩ জন বৃত্তি লাভ করে ।কিভাবে প্রতিবছর শতভাগ পাশ সহ জিপিএ ফাইভ ও বৃত্তি পরীক্ষায় শীর্ষে অবস্থান করে তা জানতে চাইলে অত্র প্রতিষ্ঠানের সম্মানিত প্রিন্সিপাল জনাব আলাউদ্দিন সাহেব সাংবাদিককে বলেন, বিএসবি ক্যামব্রিয়ান এডুকেশন গ্রুপের সম্মানিত চেয়ারম্যান লায়ন এম কে বাশার স্যারের মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত এই দ্বীনি প্রতিষ্ঠানটিতে সম্পূর্ণ বিনা মূল্যে শিক্ষা দিয়ে যাচ্ছে।২০০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত এই মাদরাসাটিতে এখন শিশু শ্রেণি থেকে দাখিল পর্যন্ত প্রায় ৭শ শিক্ষার্থী পড়াশুনা করছে।জেলা শহর থেকে অনেক দূরবর্তী গ্রাম্য এলাকার দূর্বল ছাত্র ছাত্রীদের আমরা মেধাবী ও অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলীর দ্বারা অনেক যত্নসহকারে পাঠদান করি।৫ম,৮ম ও ১০ শ্রেণির পরীক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে এসএসপি(বিশেষ ক্লাস),সাপ্তাহিক ও মাসিক পরীক্ষা নেয়া,ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন ,শিক্ষাসফরের আয়োজন, বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজনসহ বিভিন্ন সহশিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে আমরা হাতে কলমে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করি।আমাদের কোন শিক্ষার্থীকে প্রাইভেট পড়তে হয়না। ক্যামব্রিয়ানের সকল নিয়ম কানুন এখানে অনুসরণ করা হয়।অভিভাবকরা যদি আরো সচেতন হয় তাহলে আমাদের প্রতিষ্ঠান আগামী বছরে ও আরো ভালো ফলাফল অর্জন করবে ইনশাআল্লাহ।

 

About gssnews2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*