চট্টগ্রাম   বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১  

শিরোনাম

দূর্নীতিবাজদের খপ্পরে রূপগঞ্জ সাব-রেজিষ্ট্রি অফিস : ঘুষ ছাড়া এক চূলও নড়েনা কাগজ

দূর্নীতিবাজদের খপ্পরে রূপগঞ্জ সাব-রেজিষ্ট্রি অফিস : ঘুষ ছাড়া এক চূলও নড়েনা কাগজ

জিএসএসনিউজ ডেস্ক :    |    ০৪:৫৬ পিএম, ২০২০-০৮-১১

দূর্নীতিবাজদের খপ্পরে রূপগঞ্জ সাব-রেজিষ্ট্রি অফিস : ঘুষ ছাড়া এক চূলও নড়েনা কাগজ

আসাদুজ্জামান বাবুল: ঘুষ-দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে নারায়গঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসটি। প্রভাবশালী চক্রের নিয়ন্ত্রনে সাব-রেজিস্ট্রি অফিস। প্রভাবশালী চক্রের সদস্যরা এলাকার নিরীহ সাধারণ লোকদের ডেকে এনে জোরপূর্বক জমির দলিল করে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।
সংশি¬ষ্টরা জানান, রূপগঞ্জ উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রি অফিস (পূর্ব ও পশ্চিম) জনদুর্ভোগ এক নিত্যনৈমত্তিক ব্যাপার হয়ে দেখা দিয়েছে। জমির ক্রেতা-বিক্রেতা সাধারণ জনগন প্রতারিত হচ্ছেন অসাধু দলিল লেখক ও একশ্রেণীর দালাল এবং সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা দ্বারা। অসাধু দলিল লেখকদের যোগসাজশে নামমাত্র কাগজপত্র দাখিল করেও মোটা অঙ্কের ঘুষের মাধ্যমে চলছে দলিল রেজিস্ট্রির কাজ। এখানে ঘুষ ছাড়া কোনো দলিল রেজিস্ট্রি করার কথা কল্পনাও করা যায় না বলে জানা গেছে। সূত্র জানায়, একটি দলিল সম্পাদন করতে গেলে বাইরের লোকজনকে দিতে হয় মোটা অঙ্কের ফি। কে অফিসের লোক, আর কে বাইরের লোক, কে সরকারি কর্মকর্তা, কে কর্মচারী তা চেনার কোনো উপায় নেই। কাগজপত্রে ক্রটি থাকলে বাইরের লোকজনকে দিয়ে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে রফাদফা করা হচ্ছে। দলিল করতে হলে আগেই বাইরের একটি গ্রুপের কাছে তাদের তালিকায় নাম লিখাতে হয়। দলিল হওয়ামাত্র তাদের দিতে হয় মোটা অঙ্কের ঘুষ বা চাঁদা। এই টাকা থেকে একটি অংশ এক প্রভাবশালী ব্যক্তিকে দিতে হয় বলে জানা গেছে। এতে করে সরকারি ফি ছাড়াও অতিরিক্ত টাকা দিতে হচ্ছে দলিলদাতা ও গ্রহীতাদের। এ ছাড়া রয়েছে সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে অভিনব কায়দায় অর্থ আদায়। বিভিন্ন মসজিদ ও কবরস্থানের নামে লাখ লাখ টাকা আদায় করারও অভিযোগ রয়েছে। এসব অর্থ আদায়ের সঙ্গে রয়েছে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি। নারায়নগঞ্জ সাব-রেজিস্ট্রি অফিস গুলোতে সরকার নির্ধারিত রাজস্ব ফাঁকি দিতে জমির শ্রেণি পরিবর্তন করে হেবা দলিল রেজিস্ট্রির অভিযোগও পাওয়া গেছে। নালার স্থলে পতিত দেখিয়ে মোটা অঙ্কের রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া হয়েছে।
জানা যায়, উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের সাবেক লাসরদী হালে বাঘানগর মৌজায় ৫৮ শতাংশ নালার জমিকে পতিত জমি দেখিয়ে ১৪৭৫২ নম্বর দলিলমূলে রেজিস্ট্রি করা হয়। দলিলে জমিটির রেজিস্ট্রি মূল্য মাত্র ৪ লাখ টাকা দেখিয়ে ৩২ হাজার টাকায় রেজিস্ট্রি করে নেওয়া হয়। তবে নালা শ্রেণিভুক্ত জমিটির প্রকৃত মূল্য এক কোটি ৪ লাখ ৪৬ হাজার টাকা। কিন্তু জমিটি পতিত দেখিয়ে ৮ শতাংশ রেজিস্ট্রেশন স্ট্যাম্প ফি (রাজস্ব) ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। এতে ৮ লাখ ৩ হাজার ৬৮০ টাকা রাজস্ব হারিয়েছে সরকার। সাব-রেজিস্ট্রারের আশীর্বাদপুষ্ট অসাধু দলিল লেখকদের মাধ্যমে এই অনিয়ম গুলো করে থাকেন। সাব-রেজিস্ট্রি অফিস ও দলিল লেখক সূত্রে জানা যায়, সাব রেজিস্ট্রি অফিসে (পশ্চিম) কমিশন দলিল করতে সরকারি ফি বাবদ ৭৫০ টাকা ধার্য করা হলেও। এক্ষেত্রে রূপগঞ্জের আওতাভূক্ত এলাকায় কমিশনে দলিল করতে লাগে সাড়ে ৪ হাজার টাকা। আর উপজেলার বাইরের এলাকায় কমিশন করতে লাগে ৬ থেকে ৮ হাজার টাকা এবং সাব-কবলা দলিল ক্ষেত্রে শতকরা ১১ টাকা হিসেবে ব্যাংকে জমা দেওয়ার বিধান থাকলেও এক্ষেত্রে দলিলপ্রতি লাখে ৩শত টাকা দিতে হয় সাব-রেজিস্ট্রারকে। এছাড়াও দলিলপ্রতি ৮শ টাকা দিতে হয় দলিল লেখক সমিতির নামে। পাওয়ার দলিলে কোনো ফি না নেওয়ার নিয়ম থাকলেও এক্ষেত্রে ভোগান্তিতে পড়তে হয় দলিল করতে আসা সাধারন লোকজনের। এই পাওয়ার দলিলের জন্যও ঘুষ দিতে হয় ১৫শ টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। অপরদিকে, হেবা ঘোষণা দলিল ফি ছাড়াই করার বিধান থাকলেও সেখানে নেওয়া হয় ১৫শ টাকা এবং বণ্টননামা দলিলের জন্য নেওয়া হয় ৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা। কোনো দলিলের মূল পর্চা না থাকলে ফটোকপি পর্চায় নেওয়া হয় ৫ হাজার টাকা। দলিলের নকল তুলতে দলিলপ্রতি নেওয়া হয় ২ হাজার টাকা। এখান থেকে সাব রেজিস্ট্রার বখরা পান ৫শ টাকা। সংশি¬ষ্ট দালাল পায় ৫শ টাকা। নকল নবিশকারক পায় ‘শ টাকা। আর দলিল লেখক সমিতি পায় ৫শ টাকা। সূত্রগুলো আরো জানায়, সাব রেজিস্ট্রি অফিসে সব মিলিয়ে গড়ে প্রতিদিন ৫০- ৭০ টি দলিল সম্পাদিত হয়। সে হিসেবে প্রতিমাসে দলিল হয় প্রায় ১২শত। এসব খাত থেকে প্রতিমাসে রুপগঞ্জের সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের ঘুষ বাণিজ্য হয় প্রায় ৬০/৭০ লাখ টাকা! সূত্র জানায়, বিভিন্ন সময় রুপগঞ্জ সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের বিভিন্ন দুর্নীতির খবর নিয়ে স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় রিপোর্ট প্রকাশিত হয়, যা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে চক্রটি আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে। সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের পুরো কার্যক্রম এখন ঐ চক্রের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। দ্রুত এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার দাবি জানিয়েছেন রূপগঞ্জের জনসাধারন।
অভিযোগের বিষয়ে জানতে একাধকিবার মুঠোফোনে সাব-রেজিষ্ট্রার পূর্ব এসএম শফিউল বারী ও সাব-রেজিস্ট্রার পশ্চিম মনির হোসেন এর মোবাইল ফোনে বার বার ফোন কল ও ক্ষুদে বার্তা পাঠালেও ফোন ধরনেনি। এ কারণে তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
 

রিটেলেড নিউজ

আখাউড়ায় দৈনিক ভোরের দর্পণের ২০তম বর্ষপূর্তি  উদযাপন

আখাউড়ায় দৈনিক ভোরের দর্পণের ২০তম বর্ষপূর্তি  উদযাপন

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : ইসমাঈল হোসেন (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় দৈনিক ভোরের দর্পণ পত্রিকার ২০ বছর প...বিস্তারিত


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তুচ্ছ ঘটনার জেরে ৩ সন্তানের জননীকে হাত-পা বেঁধে ব্লেডের আঘাতে রক্তাক্ত জখম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তুচ্ছ ঘটনার জেরে ৩ সন্তানের জননীকে হাত-পা বেঁধে ব্লেডের আঘাতে রক্তাক্ত জখম

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : ইসমাঈল হোসেন (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শান্তা আক্তার(২৫) নামে তি...বিস্তারিত


সিরাজগঞ্জে কাউন্সিলর তরিকুল খুন: প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীসহ ৮০ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ১

সিরাজগঞ্জে কাউন্সিলর তরিকুল খুন: প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীসহ ৮০ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ১

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : এনামুল হক, সিরাজগঞ্জ থেকেঃ    সিরাজগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী কাউন্সিলর তরিকুল ইসলাম খান খুনে...বিস্তারিত


ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় এশিয়ান টেলিভিশনের ৮ম বর্ষপূর্তি উদযাপন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় এশিয়ান টেলিভিশনের ৮ম বর্ষপূর্তি উদযাপন

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : ইসমাঈল হোসেন (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : ব্যাপক উৎসাহ–উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া...বিস্তারিত


রাঙ্গামটিতে  করোনায় আক্রান্তের হার শতকরা ১৮ ভাগ  

রাঙ্গামটিতে  করোনায় আক্রান্তের হার শতকরা ১৮ ভাগ  

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : বিহারী চাকমা : রাঙ্গামাটিতে করোনায় আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. বি...বিস্তারিত


টঙ্গীতে এশিয়ান টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

টঙ্গীতে এশিয়ান টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : আব্দুস সবুর খান, টঙ্গী : আট পেরিয়ে নয়ে পর্দাপণ সবার সাথে এশিয়ান টেলিভিশন এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ঐত...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল খোশনবীশের দুরদর্শীতায় মীরপুর বাংলা স্কুল এ্যান্ড কলেজের শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সম্মাননা লাভ

অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল খোশনবীশের দুরদর্শীতায় মীরপুর বাংলা স্কুল এ্যান্ড কলেজের শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সম্মাননা লাভ

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : আসাদুজ্জামান বাবুল : গ্রীক বীর 'আলেক্সান্ডার দ্য গ্রেট' ভারতীয় উপমহাদেশে পদার্পণ করেই এখনকার প...বিস্তারিত


কীর্তিমান সমাজ সেবক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর কর্মজীবন ও কমলগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ছলিমবাড়ী পরিবারের কৃতিত্ব 

কীর্তিমান সমাজ সেবক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর কর্মজীবন ও কমলগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ছলিমবাড়ী পরিবারের কৃতিত্ব 

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : শাহ মোঃ মোতাহির আলী আজমী, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার): মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলা একটি বৈচিত্র্যময় উ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর