চট্টগ্রাম   সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১  

শিরোনাম

দুই সহযোগীসহ গ্রেফতার আন্তর্জাতিক নারী পাঁচারকারী চক্রের গডফাদার জামাত নেতা ভূয়া সাংবাদিক আজম খানের কু-কীর্তির খতিয়ান 

জিএসএসনিউজ ডেস্ক :    |    ০৮:৪৫ পিএম, ২০২০-০৮-১৫

দুই সহযোগীসহ গ্রেফতার আন্তর্জাতিক নারী পাঁচারকারী চক্রের গডফাদার জামাত নেতা ভূয়া সাংবাদিক আজম খানের কু-কীর্তির খতিয়ান 

আসাদুজ্জামান বাবুল : সম্প্রতি গ্রেফতার হওয়া  আন্তর্জাতিক নারী পাচারকারী চক্রের গডফাদার জামাত নেতা ভূয়া সাংবাদিক আজম খানের সীমাহীন কু-কীর্তি একটার পর একটা বেরিয়ে আসছে। তিনি দুবাই, ওমানসহ মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কয়েকটি দেশে শত শত সুন্দর চেহারার তরুণী-কিশোরী মোট বেতনের প্রলভোন দেখিয়ে পাঁচার করেছেস। জামায়াত-শিবিরের রাজনীতিতে সক্রিয় এই অপরাধী কয়েকজন সাংবাদিক নেতার হাতধরে নারায়নগঞ্জ ঢাকায় চক্র গড়ে তুলেছেন।

দুবাইয়ে তার ফাইভ স্টার হোটেলসহ দুবাইয়ের ফরচুন পার্ল হোটেল এ্যান্ড ড্যান্স ক্লাব, হোটেল রয়েল ফরচুন, হোটেল ফরচুন গ্রান্ড হোটেল সিটি টাওয়ার নামে পাঁচটি হোটেল আছে। সেখানে নাচ, গান, মদ-পানীয়সহ অসামাজিক কাজ চলে। জামাত বিএনপি, শীর্ষনেতারা এবং তাদের সাংবাদিক নেতারা দুবাই গেলেই উঠতেন আন্তর্জাতিক নারী পাচারকারী চক্রের গডফাদা আজম খানের হোটেলে এমনটাই দাবীতার। সম্প্রতি এই কুখ্যাত নারী পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি।

প্রথমে জামায়াত-শিবিরের রাজনীতিতে জড়িত ছিল আজম খান। এরপর একজন প্রভাবশালী সাংবাদিক নেতা তার সাঙ্গপাঙ্গদের দীর্ঘদিন নানামূখী সেবাযত্ন করাই সাংবাদিক নেতার আর্শিবাদেই বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হন। তিনি শুধু বিএনপি রাজনীতির সাথে যুক্ত হয়েই ক্ষান্ত হননি। এই আন্তর্জাতিক নারী পাচারকারী চক্রের গডফাদার জামাত নেতা আজম খানকে ভূয়া সাংবাদিক বানিয়ে সাংবাদিকদের প্রাণপ্রিয় সংগঠন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য বানিয়ে সাংবাদিকদের র্তীথস্থান জাতীয় প্রেসক্লাব অঙ্গন কলুষিত করা হয়েছে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন এর কাউন্সিলর নং-১৬৬ এবং  ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের গত নিবাচনে ভেটার তালিকার সদস্য-১৬০০। জামায়াত-বিএনপি ঘরানার প্রায় সব রাজনৈতিক নেতার সঙ্গেই ব্যক্তিগত সম্পর্ক রয়েছে তার। এমনকি দলীয় শীর্ষ নেতারা দুবাই গেলে আজম খানের হোটেলে উঠেন। জিয়া আদর্শ একাডেমি নামের একটি সংগঠন তৈরি করে সেটির কেন্দ্রীয় সভাপতি তিনি। দুবাই থেকে দেশে এলে সংগঠনের ব্যানারে সভা-সমাবেশ করেন। তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এসব সভা-সমাবেশে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত থাকতেন বলেও অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

সূত্রে আরো জানা গেছে, সিআইডির হাতে গ্রেফতার আন্তর্জাতিক নারী পাচারকারী চক্রের হোতা আজম খানের দেয়া জবানবন্দী, জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্য অনুসন্ধানের ভিত্তিতে জানা গেছে দুবাইয়ের ফরচুন পার্ল হোটেল এ্যান্ড ড্যান্স ক্লাব, হোটেল রয়েল ফরচুন, হোটেল ফরচুন গ্রান্ড হোটেল সিটি টাওয়ারের অন্যতম মালিক এবং বাংলাদেশে নারী পাচারকারী চক্রটির গডফাদার আজম খান। দেশের বিভিন্ন প্রান্তের প্রায় অর্ধশত দালালের মাধ্যমে অল্পবয়সী মেয়েদের অথবা বিশ-বাইশ বছরের তরুণীদের উচ্চ বেতনে কাজ দেয়ার কথা বলে প্রলুব্ধ করত। বিশ্বস্ততার প্রমাণের জন্য চাকরির আগেই আগাম হিসেবে ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা পরিশোধ করা হতো। পাশাপাশি দুবাইয়ে যাওয়া-আসার সব খরচও তাদের দেওয়া বলে চক্রটি জানিয়েছেন। দালালরা নির্ধারিত দুটি বিদেশী এয়ারলাইন্স এজেন্সির মাধ্যমে তাদেরকে দুবাই পাঠাতেন। সেখানে যাওয়ার পরে প্রথমে তাদের ছোটখাটো কাজ দেয়া হতো। এরপর জোরপূর্বক ড্যান্সক্লাবে তাদের নাচতে বাধ্য করা হতো। অন্যথায় চলতো নানাপ্রক্রিয়ায় শারীরিকভাবে নির্যাতন অথবা বদ্ধ ঘরে আটকে রেখে বৈদ্যুতিক শক পর্যন্ত দেয়া হতো সুত্রটি নিশ্চিত করেছেন।তাদের দেয়া হতো না কোন খাবার। একপর্যায়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন অর্থাৎ প্রস্টিটিউশনে (পতিতাবৃত্তি) বাধ্য করা হতো তাদের।

পুলিশের কাছে হস্তগত হওয়া ছবিতে দেখা গেছে, ২০১৮ সালের ১৪ জুলাই বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তি সুচিকিৎসার দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত এক সভায় মঞ্চে আজম খানের একপাশে সাবেক আইনমন্ত্রী এবং অন্যপাশে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান। একই দাবিতে গত বছরের মে এক প্রতিবাদসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি। এসব ছবি দিয়ে প্রতারণা করে নারী পাঁচারের কাজে ব্যবহার করত এমন অভিযোগ আজম খানের বিরুদ্ধে। এদিকে সরকারি একটি সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মো. আকতার হোসেনের মালিকানাধীনগাঙচিল ড্যান্স ফ্লোর তারার মেলা নৃত্য একাডেমি এবং অনিক সরকারের মালিকানাধীন এডিসি অনিক ড্যান্স কোম্পানী নারী পাঁচারের কাজে সরাসরি জড়িত রয়েছে। তারা ড্যান্স বারে কাজ দেওয়ার নামে তরুণীদের সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইসহ বিভিন্ন শহরে পাচারে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে।এদের প্রধান লক্ষ্য নিম্নবিত্ত পরিবারের তরুণীরা। এমন তরুণীদের অসহায়ত্বকে পুঁজি করে সেখানে নিয়ে তাদের যৌন পেশাতেও বাধ্য করা হচ্ছে বলে গুরুত্তরো অভিযোগ উঠেছে। অনিক আখতার সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিভিন্ন ড্যান্স বারের সরাসরি মালিক না হলেও সমস্ত বার মালিকদের এজেন্ট হিসেবে কাজ করছে।তারা অসহায় তরুণীদের বিদেশে ড্যান্স বারে চাকরির কাজে পাঠানোর জন্য রাজি করায়। এর জন্য তাদের ড্যান্সবারের মালিকরা প্রত্যেক তরুণীর জন্য ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা কমিশন দেয়। মূলত: এরাই দুবাই, আবুধাবি, শারজা মালয়েশিয়ায় উঠতি বয়সী সুন্দরী তরুণীদের পাঠানোর কাজে প্রত্যক্ষ ওপরোক্ষভাবে সাহায্য করে।এদের মতো এমন আরও ৫০ জনের নামের তালিকা রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী

 

২২২ নারায়ণগঞ্জে ্যাব-১১ এর মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র অফিসার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলেপ উদ্দিন বলেন, বিভিন্ন পর্যায়ে খোঁজ-খবর নিয়ে সব ধরনের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে।বাংলাদেশ এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত, দুই 'জায়গাতেই নারী পাচারকারী বিভিন্ন চক্রের বিষয়ে তথ্য পেয়েছেন।র্যাবের এই কর্মকর্তা আরো জানান, গত এক বছরে নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে অন্তত ৬শত থেকে ৭শ' কিশোরী তরুণীকে বিদেশে ড্যান্সক্লাবে উচ্চ বেতনে চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে পাঁচার করা হয়েছে। তাদের প্রত্যেকের বয়সই ১৬ থেকে ২২ এর মধ্যে।পাঁচারের শিকার এসব কিশোরী তরুণীদের পাসপোর্ট, ভিসা থেকে শুরু করে যাতায়াত বিমান বন্দরে ইমিগ্রেশন পার হওয়ার যাবতীয় খরচ আরব আমিরাতের ড্যান্স বারগুলোর মালিকরা বহন করে থাকেন। এজন্য প্রতিটি জায়গায় তাদের লোকজন রয়েছে। ্যাবের গোয়েন্দা সংস্থা এই চক্রটির উপর তীক্ষ্ণ নজরদারী শুরু করেছে। চলতি বছরের ২৯ মে দুবাইভিত্তিক সংবাদপত্রগালফ নিউজ প্রকাশিত এক সংবাদে বলা হয়, দুবাই পুলিশ চারজন অপ্রাপ্তবয়স্ক বাঙালি তরুণীকে একটি নাইট ক্লাব থেকে উদ্ধার করে। পাসপোর্টে ভুল তথ্য দিয়ে তাদের প্রাপ্তবয়স্ক দেখানো হয়েছিল। নাচের কথা বলে তাদের নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তাদের পাসপোর্ট বানিয়ে দেওয়া এবং সেখানে নিয়ে যাওয়ার যাবতীয় খরচ এক ব্যক্তি বহন করেন।

ওই চারজনের একজন জানিয়েছিলো, পরিবারে আর্থিক অভাব অনটনের কারণে উপার্জন করতে বিদেশে গিয়ে নাচের কাজের প্রস্তাবে রাজি হয়েছিলো তারা। কিন্তু সেখানে যাওয়ার পর প্রতি মাসে অন্তত তিনজন সেবাগ্রহীতার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে বাধ্য করা হয় তাদের। এসব তথ্য নিশ্চিত হওয়ার পর মাঠে নামে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ব্যাপারে বিশদ তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ শুরু করে। ইতোমধ্যে দুবাই, সিঙ্গাপুর এবং মালয়েশিয়ায় ড্যান্স বার রয়েছে এমন বেশ কয়েকজন বাঙালিকে চিহ্নিতও করা হয়েছে।

মূলত এই চক্রটিই বাংলাদেশ থেকে তরুণী সংগ্রহের জন্য নিজস্ব এজেন্ট তৈরি করে। নারায়ণগঞ্জের একটি বস্তি থেকে যাওয়া ১৯ বছরের এক তরুণী এই কাজে যুক্ত হওয়ার বর্ণনা দিতে গিয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, 'সাত-আট বছর আগে তিন ভাইবোনকে রেখে তার বাবা অন্যত্র বিয়ে করেন। এরপর তাদের মা পোশাক কারখানায় কাজ করে তাদের বড় করেন। মা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে পরিবারের হাল ধরতে হয়। তিনি পোশাক কারখানায় কাজ নেন। কিন্তু তা দিয়ে সংসার চলছিল না। তখন বস্তির এক তরুণী তাকে দুবাই যাওয়ার বিষয়টি জানান।

সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত পড়া এই তরুণী জানান, ২০১৮ সালের নভেম্বরে অনিক সরকার নামে এক যুবকের মাধ্যমে তিনি প্রথম আরব আমিরাতেরড্যান্স ক্লাবেযান। তিন মাস থেকে ফিরে আসেন। এরপর এই বছরের মাঝামাঝিতে আরেকবার গিয়েছিলেন। নাচের কথা বলে নেওয়া হলেও একপর্যায়ে যৌন পেশায় বাধ্য করা হয় তাকে। এসব তথ্য নিশ্চিত হওয়ার পর মাঠে নামে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ব্যাপারে বিশদ তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ শুরু করে। ইতোমধ্যে দুবাই, সিঙ্গাপুর এবং মালয়েশিয়ায় ড্যান্স বার রয়েছে এমন বেশ কয়েকজন বাঙালিকে চিহ্নিতও করা হয়েছে। মূলত এই চক্রটিই বাংলাদেশ থেকে তরুণী সংগ্রহের জন্য নিজস্ব এজেন্ট তৈরি করে। ড্যান্স বারে কাজ করে দেশে ফিরে আসা কয়েকজন তরুণীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আরব আমিরাতে যাওয়ার বিষয়টি কয়েক ধাপে সম্পন্ন হয়। যাওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করলে দেশে থাকা এজেন্টরা মেয়েদের ছবিড্যান্স বারেরমালিকদের কাছে পাঠান। সেখান থেকে পছন্দ করলে তাদের পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়। কখনো কখনো নতুন মেয়েদের দেখতে বার মালিকেরা

রিটেলেড নিউজ

গাবতলীতে রাতের আধাঁরে সরকারী জায়গা থেকে মাটি কাটার অভিযোগ

গাবতলীতে রাতের আধাঁরে সরকারী জায়গা থেকে মাটি কাটার অভিযোগ

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : বগুড়া প্রতিনিধি ঃ প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে রাতের আধাঁরে বগুড়া গাবতলীর পেরীহাট মোরাঘাটি খাস জায়গা...বিস্তারিত


গাবতলীতে কোকো’র ৬ষ্ঠ  মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সভা ও দোয়া

গাবতলীতে কোকো’র ৬ষ্ঠ  মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সভা ও দোয়া

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : আল আমিন মন্ডল (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ছোটছেলে আরাফাত রহমান কোকো&rsq...বিস্তারিত


মতবিরোধ ভুলে  মেয়র প্রার্থী সাইফুল’কে বিপুল ভোটে জয়ী করুন-সাবেক এমপি লালু

মতবিরোধ ভুলে  মেয়র প্রার্থী সাইফুল’কে বিপুল ভোটে জয়ী করুন-সাবেক এমপি লালু

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : আল আমিন মন্ডল (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও সাবেক এমপি মোঃ ...বিস্তারিত


হারিয়ে যাচ্ছে ঢলু বাঁশের চুঙ্গাপুড়া পিঠা 

হারিয়ে যাচ্ছে ঢলু বাঁশের চুঙ্গাপুড়া পিঠা 

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : চিনু রঞ্জন তালুকদার, মৌলভীবাজার ঃ চুঙ্গার ভেতরে বিন্নি চাল, দুধ, চিনি, নারিকেল ও চালের গুঁড়া দিয়ে তৈ...বিস্তারিত


বাগেরহাটে এক সন্ত্রাসীর পা ভেঙ্গে দু’চোখ নষ্ট করে দিয়েছে অতিষ্ট এলাকাবাসী

বাগেরহাটে এক সন্ত্রাসীর পা ভেঙ্গে দু’চোখ নষ্ট করে দিয়েছে অতিষ্ট এলাকাবাসী

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : সেখ মুজাহিদুল ইসলাম (বাগেরহাট প্রতিনিধি) : বাগেরহাটের শরণখোলার পল্লীতে সাইফুল ইসলাম মোল্লা (৩৫) ন...বিস্তারিত


মুজিব শতবর্ষে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির  থেকে  ঘর এবং বিদ্যুৎ পেলেন গৃহহীন রশিদা

মুজিব শতবর্ষে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির  থেকে  ঘর এবং বিদ্যুৎ পেলেন গৃহহীন রশিদা

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : মোহাম্মদ শাহ্ আলম শফি (কুমিল্লা) : অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার’ এই শ্লোগানে ও মুজিব শতবর্ষে উপল...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল খোশনবীশের দুরদর্শীতায় মীরপুর বাংলা স্কুল এ্যান্ড কলেজের শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সম্মাননা লাভ

অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল খোশনবীশের দুরদর্শীতায় মীরপুর বাংলা স্কুল এ্যান্ড কলেজের শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সম্মাননা লাভ

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : আসাদুজ্জামান বাবুল : গ্রীক বীর 'আলেক্সান্ডার দ্য গ্রেট' ভারতীয় উপমহাদেশে পদার্পণ করেই এখনকার প...বিস্তারিত


কীর্তিমান সমাজ সেবক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর কর্মজীবন ও কমলগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ছলিমবাড়ী পরিবারের কৃতিত্ব 

কীর্তিমান সমাজ সেবক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর কর্মজীবন ও কমলগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ছলিমবাড়ী পরিবারের কৃতিত্ব 

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : শাহ মোঃ মোতাহির আলী আজমী, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার): মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলা একটি বৈচিত্র্যময় উ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর