চট্টগ্রাম   রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১  

শিরোনাম

সিরাজগঞ্জ বেলকুচি উপজেলায় জমির বিরোধে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

জিএসএসনিউজ ডেস্ক :    |    ০৪:৪৩ পিএম, ২০২০-০৯-১৭

সিরাজগঞ্জ বেলকুচি উপজেলায় জমির বিরোধে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

এনামুল হক,  সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার চর খোকশাবাড়ী গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আবু সাইদ" সম্পত্তি যাহার মৌজার নাম খোকশাবাড়ী জে,এল নং-৯৮,এস,, খতিয়ান নং-৯২৬,এস,,দাগ নং-৮২৭,আর,এস,খতিয়ান নং-৬৭২,আর,এস,দাগ নং-১২৩,জমির পরিমাণ (১৬+২৯)৪৫ শতক জায়গা ভূয়া দলিল দেখিয়ে দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে শৈলাবাড়ি গ্রামের মৃত আবদুল জব্বার" পুত্র মোঃ আবুল কালাম (৬৫), মৃত জয়নাল আবেদীন" পুত্র হাসান (৩৫) মোঃ আব্দুল জলিল (৩২),শরিফুল ইসলাম(২৮) এর বিরুদ্ধে। অভিযোগকারি  বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত আবু সাইদ" পুত্র মোঃ আসলাম হোসেন,এই প্রতিবেদককে বলেন খোকশাবাড়ী মৌজার এস, ,রেকর্ডএ আমার দাদা মৃত আবদুল আজিজ শেখ আমার দাদার বোন মৃত তামান্না বিবি,মৃত ফুল বিবিদের নামে লিপিবদ্ধ হয়।আমার দাদার অপর বোন মৃত কুস্তি খাতুন, ১নং আসামির মা/ ও৪ নং আসামিদের দাদীকে তাহার ভাগের অংশ একত্রিত করিয়া একদাগে বুঝিয়া দিলে মৃত কুস্তি খাতুন উক্ত সম্পত্তি ভোগদখলে থাকাকালীন তাহার ২ছেলে মোঃ কালাম মৃত জয়নাল আবেদীন দ্বয়ের নামে আর,এস,রেকর্ড ভূক্ত হয়। উক্ত কুস্তি খাতুন তাহার অংশ একদাগে প্রাপ্তির পরেও অন্যান্য দাগের জমিতে কুস্তি খাতুন" নামে আর, এস, রেকর্ড ভূক্ত হয়। আমার বাবার মৃত্যুর পরে আমার বাবার নামে ক্রয়কৃত তাহার পৈত্রিক সুত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তি আমি আমার অন্যান্য ভাইবোনেরা ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত হইয়া ভোগদখল করিয়া আসিতে থাকা কালিন কিছুদিন পূর্বে হঠাৎ করিয়া উপরোক্ত আসামীগন আমার পৈত্রিক সম্পত্তিতে তাহাদের সম্পত্তি আছে মর্মে অন্যায় ভাবে দাবি করিতেছে। এবং তাহারা আমাকে একখানি দলিলের ফটোকপি প্রদান করে। যাহার দলিল নং-৭২৬৩,তারিখ -২১//১৯৬৮ইং। উক্ত দলিল দেখাইয়া বর্নিত জমি ২ও ৪নং আসামিদের পিতার নামে এবং ১নং আসামির নামে ক্রয়কৃত সম্পত্তি যাহা আমার দাদা দাদার দুইবোন বিক্রেতা মর্মে জানান আমি উক্ত দলিলের ফটোকপি নিয়ে  সংশ্লিষ্ট রেজিষ্ট্রি অফিসে গিয়ে অফিসের লোক দারা খোঁজাখুজি করিয়া উক্ত দলিল নম্বরের কোন হদিস পাওয়া যায়নি  এবং অফিসের রেজিস্ট্রারে উক্ত দলিল নাইমর্মে দেখতে পাই। অভিযোগকারি আরোবলেন বিষয়টি নিয়ে এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ কয়েকদফা সালিসি বৈঠক করেন। সেই সালিশি বৈঠকে কোন সুরাহা করতে না-পেরে মুরুব্বিগণ দুই পক্ষকেই আইনের আশ্রয় নেয়া পরামর্শ দেন এবং জমির কাগজপত্র অনুযায়ী আইন যাকে রায় দেবে সেই সম্পত্তি দখলে যাবেন, এখন যাহার দখলে আছে সেই দখলে থাকবে। কিন্তু ১৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার ভোরে কালাম গংরা মুরুব্বিদের কথা বৃদ্ধাংগুলি দেখিয়ে আমার বাড়ির সামনে(৪৫) শতক জায়গার উপর লাগানো ২শতাধিক গাছ কর্তন করে জায়গা দখল নেন এবং তারা আমিও আমার পরিবারের সদস্যদের পারপিট প্রাননাশের হুমকি প্রদান করেন। আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে প্রশাসনের নিকট আমি আমার পরিবারের নিরাপত্তা আমার জায়গা রক্ষার জোরদাবি জানাচ্ছি এবিষয়ে মোঃ কালামকে জিগ্যেস করাহলে এপ্রতিবেককে বলেন  উক্ত সম্পত্তি আমার ক্রয়কৃত সম্পত্তি তাই আজআমি দখল নিয়েছি।এবিষয়ে সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি প্রতিবেদককে বলেন উক্ত বিষয়টি নিয়ে থানায় মুক্তিযোদ্ধার সন্তান অভিযোগ করেছেন অভিযোগ পাওয়ার পড় ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে     গ্রাম বাসীর হাতে