চট্টগ্রাম   সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১  

শিরোনাম

পুলিশের ৭ মার্চ পালন : জাতির  জন্য শুভ বার্তা বয়ে আনুক

পুলিশের ৭ মার্চ পালন : জাতির  জন্য শুভ বার্তা বয়ে আনুক

জিএসএসনিউজ ডেস্ক :    |    ০৪:১৬ পিএম, ২০২১-০৩-০৮

পুলিশের ৭ মার্চ পালন : জাতির  জন্য শুভ বার্তা বয়ে আনুক

আবদুল গাফফার মাহমুদ :  রবিবার ছিল ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। গোটা জাতি  বিনম্র চিত্তে ভাবগম্ভীর পরিবেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি উদযাপন করেছে। এই দিবসটি  বাঙালী  জাতির জীবনে এক অবিস্মরণীয়  দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী  উদ্যানে লাখ লাখ লোকের উপস্থিতিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বজ্রকণ্ঠে  এক নাতিদীর্ঘ  ভাষণ প্রদান করেন।  সেই ভাষণেই তিনি মূলত:  সেদিন একটি স্বাধীন  জাতির ঘোষণা দেন।  সেদিন তিনি বলেন,  “ এবারের সংগ্রাম, স্বাধীনতার সংগ্রাম। মুক্তির সংগ্রাম।  আমরা যখন  মরতে শিখেছি তখন কেউ আমাদের দাবায়ে রাখতে পারবেনা।”  আসলে পরাক্রমশালী পাক হানাদার বাহিনী শত চেষ্টা করেও আমাদের দাবায়ে রাখতে পারেনি। ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে  আমরা  একটি স্বাধীন  বাংলাদেশ  পেয়েছি।  পৃথিবীর  ইতিহাসে  বাঙালীর এই অর্জন  একটি বিরল দৃষ্টান্ত।  পৃথিবীর ইতিহাসে  এই অর্জন একটি মাইলফলক হয়েই চির জাগরূক  থাকবে।

 ‘৭০ এর নির্বাচনে এক ঐতিহাসিক বিজয় অর্জনের পরেও পাকিস্তানী শাসক গোষ্ঠী ক্ষমতা হস্তান্তরে নানা টালবাহানা শুরু করে। নানা চড়াই উৎরাইয়ের মধ্যে বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের জনসমুদ্রে তার  স্বভাব-সুলভ কন্ঠে এই ঐতিহাসিক ভাষণ প্রদান করেন। এই ভাষণটি ইতিহাসে ৫টি ভাষণের একটি হিসেবে  অবিস্মরণীয় স্থান দখল করে আছে।

৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু ঐতিহাসিক ভাষণ প্রদানের পরেই পাকিস্তানী শাসক গোষ্ঠী নতুন করে নড়েচড়ে বসে। তারা বাঙালী  জাতিকে চিরতরে  পদানত করে রাখার ফন্দি আঁটতে থাকে। অবশেষে  ২৫ মার্চ  মধ্যরাতে  ঘুমন্ত  বাঙালী জাতির উপর  পাক হানাদার বাহিনী  হায়েনার মত ঝাঁপিয়ে পড়ে।  কিছু বুঝে উঠার আগেই হাজার হাজার  নিরীহ  বাঙালীকে ব্রাশ ফায়ারে পাখির মতে গুলি করে নির্বিচারে হত্যাকান্ড চালায়। এই ববর্র জংলী বাহিনীর হাত থেকে  সেদিন মা-বোনেরা এমনকি শিশুরা পর্যন্ত রেহাই পায়নি।  সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে যুদ্ধ। মুক্তিকামী বাঙালীর দামাল ছেলেরা হাতে অস্ত্র তুলে নেয়। তারা সীমান্ত পাড়ি দিয়ে পাশের দেশে গিয়ে ট্রেনিং নিয়ে অস্ত্র হাতে আবার দেশে ফিরে আসে। প্রাণপণে হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে  ঝাঁপিয়ে পড়ে।  এভাবে ৯ মসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে ১৬ ডিসেম্বর  বাঙালী চূড়ান্ত বিজয় অর্জন করে।  পৃথিবীর অন্যতম একটি শক্তিশালী  বাহিনী মুক্তিবাহিনী ও মিত্র বাহিনির কাছে  পরাজয় মানতে বাধ্য হয়। সেই বাহিনী ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই যেখানে  দাঁড়িয়ে  বঙ্গবন্ধু ঘোষণা  করেছিলেন এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম,এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম, সেখানেই আত্ম-সমর্পণের  দলিলে  সই করেন পাক বাহিনী প্রধান লে: জেনারেল নিয়াজী।  লাখ লাখ  মা-বোনের  ইজ্জত-আব্রু আর লাখো  শহীদের রক্তের  বিনিময়ে  বাঙালী জাতি স্বাধীনতা অর্জন করে।  বিশ্বের  বুকে মাথা  উঁচু করে দাঁড়ায় লাল-সবুজের পতাকা।

স্বাধীনতা পরবর্তীকাল থেকে ৭ মার্চ বাঙালি জাতি গর্বের সঙ্গে  পালন করে। এবারে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি হচ্ছে। সে কারণে এবারের ৭ মার্চ  পালনে রয়েছে ভিন্ন রকম আমেজ ও তাৎপর্য। 

এবারই প্রথম  বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী এই দিবসটি আনুষ্ঠানিকভাবে পালন করছে।  বাংলাদেশের ৬৬০টি থানায়  একযোগে  তারা এই দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায়  পালন করছে।  আইজিপি ড: বেনজীর আহমদ সারাদেশের পুলিশকে  এই দিবস পালনের নির্দেশ দিয়েছেন।  অভিনন্দন আইজিপি; একই সঙ্গে অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে।

পুলিশকে বলা হয়, একটি দেশের  সরকারের মেরুদন্ড। দেশের আইন-শৃংখলা রক্ষায় পুলিশই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে থাকে।  আমাদের পুলিশও ইতিমধ্যে  অনেক প্রশংসনীয় কাজ করেছে। জঙ্গী দমন, মাদক দমন,  সন্ত্রাস  দমনসহ  অনেক  কাজে পুলিশের  ভূমিকা  প্রশংসনীয়। সর্বশেষ করোনাকালে  তাদের ফ্রন্ট-ফাইটার ভূমিকা প্রণিধানযোগ্য। এতে অনেকে প্রাণও দিয়েছেন।

তবে পুলিশের নানা বির্তকিত ভূমিকাও সমাজে আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। সে সব  নেতিবাচক কর্মকান্ড থেকে বেরিয়ে এসে পুলিশ আগামী শতাব্দীর একটি স্বাধীন দেশের  উপযোগী  পুলিশ বাহিনী হিসেবে গড়ে উঠবে এটাই জাতির আশা-আকাংখা।  কিন্তু কোনভাবেই যেন ৭ মার্চ পালনের মধ্য দিয়ে পুলিশ কোন বিতর্কিত ভূমিকায় আবির্ভূত না হয়।  এটাই জাতির আশাবাদ।  এই দিবস পালনের মধ্যদিয়ে  পুলিশ জাতির জন্য  শুভ বার্তা বয়ে আনুক এটাই কাম্য।

 

রিটেলেড নিউজ

শারদীয় দূর্গোৎসবে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জে মানববন্ধন

শারদীয় দূর্গোৎসবে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জে মানববন্ধন

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : ফারুকুজ্জামান,কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ শারদীয় দূর্গোৎসবে সাম্প্রদায়িক হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতি...বিস্তারিত


হোমনায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সমাবেশ 

হোমনায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সমাবেশ 

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : মোর্শেদুল ইসলাম শাজু, হোমনা : কুমিল্লার হোমনায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সম্প্রীতি সমাবেশ ...বিস্তারিত


মুরাদনগরে সিএনজি চালক হেলাল হত্যার ঘটনায় আরো ৩ জন গ্রেপ্তার

মুরাদনগরে সিএনজি চালক হেলাল হত্যার ঘটনায় আরো ৩ জন গ্রেপ্তার

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : বেলাল উদ্দিন আহাম্মদ, মুরাদনগর(কুমিল্লা) প্রতিনিধি: মুরাদনগরে নিখোঁজের ছয় দিন পর সিএনজি চলকের গল...বিস্তারিত


র‌্যাবের অভিযানে দাউদকান্দিতে ক্লু-লেস হত্যা মামলার একমাত্র আসামী গ্রেফতার

র‌্যাবের অভিযানে দাউদকান্দিতে ক্লু-লেস হত্যা মামলার একমাত্র আসামী গ্রেফতার

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : :  মোহাম্মদ শাহ্ আলম শফি (কুমিল্লা) : রোববার (১৭ অক্টোবর) সকালে কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি থানাধীন ...বিস্তারিত


কুমিল্লায় ইসকনের মানববন্ধন

কুমিল্লায় ইসকনের মানববন্ধন

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : শাহ আলম শফি (কুমিল্লা) :  নোয়াখালী মন্দিরে পুরোহিত হত্যাসহ সারাদেশে শারদীয় দুর্গোৎসবে প্রতিমা ভ...বিস্তারিত


কমলগঞ্জে দোকানে হামলা-ভাংচুর, আহত-১

কমলগঞ্জে দোকানে হামলা-ভাংচুর, আহত-১

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : চিনু রঞ্জন তালুকদার, মৌলভীবাজার ঃ কমলগঞ্জে রহিমপুর ইউনিয়নের কালেঙ্গা (কড়ালি টিলা) গ্রামে একটি ডিম ...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল খোশনবীশের দুরদর্শীতায় মীরপুর বাংলা স্কুল এ্যান্ড কলেজের শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সম্মাননা লাভ

অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল খোশনবীশের দুরদর্শীতায় মীরপুর বাংলা স্কুল এ্যান্ড কলেজের শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সম্মাননা লাভ

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : আসাদুজ্জামান বাবুল : গ্রীক বীর 'আলেক্সান্ডার দ্য গ্রেট' ভারতীয় উপমহাদেশে পদার্পণ করেই এখনকার প...বিস্তারিত


কীর্তিমান সমাজ সেবক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর কর্মজীবন ও কমলগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ছলিমবাড়ী পরিবারের কৃতিত্ব 

কীর্তিমান সমাজ সেবক আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর কর্মজীবন ও কমলগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ছলিমবাড়ী পরিবারের কৃতিত্ব 

জিএসএসনিউজ ডেস্ক : : শাহ মোঃ মোতাহির আলী আজমী, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার): মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলা একটি বৈচিত্র্যময় উ...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর